×
চট্রগ্রাম জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ফয়েজ লেক জাতিতাত্ত্বিক যাদুঘর(চট্রগ্রাম) চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত চট্টগ্রাম ওয়ার সিমেট্রি বাটালী হিল কোর্ট বিল্ডিং বায়েজিদ বোস্তামী ভাটিয়ারী হালদা নদী বাঁশখালী বেলগাও চা বাগান বাঁশখালী ইকোপার্ক পারকী সমুদ্র সৈকত ডিসি হিল মির্জারখীল দরবার শরীফ শাক্যমুনি বিহার ঐহিহ্যবাহী রাজ বাড়ী অপুর্ব স্থাপত্য নিদর্শন চট্টগ্রামের রেলওয়ে হাতির বাংলো মিরসরাই থেকে সীতাকুন্ডের সকল ঝর্ণা ঝিরি লালদিঘীর ময়দানে ঐতিহাসিক জব্বারের বলী খেলা হাজারিখিল বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য দুধ পুকুরিয়া ধোপাছড়ি বন্যপ্রাণী অভয়ারন্য গুলিয়াখালি সমুদ্র সৈকত বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকত সীতাকুন্ড বোটানিকেল গার্ডেন ও ইকোপার্ক বারৈয়াঢালা জাতীয় উদ্যান
☰ চট্রগ্রাম জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
হাজারিখিল বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য

পরিচিতিঃ

হাজারিখিল অভয়ারণ্যে প্রবেশ গেটের ডানপাশেই চমকপ্রদ রোমান্স। যার জন্য আপনাকে সাহসী হতে হবে।

এখানে আছে ট্রি অ্যাক্টিভিটিস। গেটে ঢুকেই নাম এন্ট্রি করে জনপ্রতি ১০০ টাকা দিতে হবে। এরপর

আপনাকে জ্যাকেট, হেলমেট সব পরিয়ে দিবে।।। দেখতে বুঝা যায় কতোটা সহজ কিন্তু যে করে সে বুঝতে পারে

অতটা আবার ইজি না আশা করি যারা যারা করতে ইচ্ছুক তারা ভালো একটা এক্সপেরিএন্স পাবেন

এখানে যে কেউ ইচ্ছা করলেই রাতে থাকতে পারবে,বন বিভাগের আওতাধীনে তাবুর ব্যবস্থা আছে,এক তাবুতে ২

জন করে থাকতে পারবেন, তাবু জন প্রতি ১৫০ টাকা ভাড়া,পুরো তাবুতে মাত্র ২ জন করে থাকা যায়।। পুরো তাবু

নিলে ৩০০ টাকা ভাড়া পড়বে।। আপনারা চাইলে রাতে নিজেরা বারবিকিউ করতে পারবেন অথবা বন বিভাগের

লোকদের বললেই তারাই বারবিকিউ করে আপনাদের দিবে।। আর হ্যা তাবুর মধ্যে থাকার জন্য সব ব্যবস্থাই

আছে,সো নো টেনশন।।

রাতের ফিল পাবেন যা আপনাকে মুগ্ধতায় ভরিয়ে দিবে,কনর্ফাম।। ঝিঝি পোকার শব্দ,কপাল ভালো হলে

বন্যপ্রাণীর শব্দ,আর সাথে তো থাকছেই নিরবতা,প্রকৃতিকে অপারভাবে কাছে পাওয়া আপনি নিজে কথা বললেই

সাউন্ড পাবেন

অবস্থান ও যাতায়াত

চট্টগ্রাম থেকে ফটিকছড়ি হয়ে হাজারিখিল অভয়ারণ্য যেতে হয়। ফটিকছড়ির বিবিরহাট পর্যন্ত বাসে যেয়ে

যেকোন লোকাল পরিবহন যেমন সিএনজি তে এখানে যাওয়া যায়। ভাড়া পড়বে ৩০-৩৫ টাকা।। ফটিকছড়ি

উপজেলার ভূজপুর থানার হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নে অবস্তিত।বাংলাদেশের যেকোনো জায়গা থেকে সড়কপথে এখানে

যাওয়া যায়।রাত্রি যাপনের জন্য বন বিভাগের একটি বিশ্রামাগার ও আছে।


Total Site Views: 996022 | Online: 5