×
চাঁদপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

মোলহেড : ত্রিনদীর সঙ্গমস্থল চাঁদপুর শহরের রক্তধারা ইলিশ চত্বর অঙ্গীকার শপথ চত্বর চাঁদপুর স্টেডিয়াম নুনিয়া দত্তের বাড়ি পূজা মন্দির অরুণ নন্দী সুইমিংপুল চৌধুরী বাড়ি হযরত রাস্তি শাহ (রঃ)-এর মাজার ও দিঘি লোহাগড়ের মঠ ষাটনল পর্যটন কেন্দ্র সাহেবগঞ্জ নীল কুটি পর্তুগীজ দুর্গ হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদ শহীদ স্মৃতি সমাধিস্থল নাসিরকোট রূপসা জমিদার বাড়ি শোল্লা জমিদার বাড়ি (চৌধুরী বাড়ি) কড়ৈতলী জমিদার বাড়ি বড়কুল জমিদার বাড়ি (ভাগ্যিতা বাড়ি) বলাখাল জমিদার বাড়ি (চৌধুরী বাড়ি) দুর্লভ নাগলিঙ্গম গাছ বাদশা আলমগীরি মসজিদ শহীদ রাজু ভাস্কর্য
☰ চাঁদপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
বাদশা আলমগীরি মসজিদ

পরিচিতি

চার বছরের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে চাঁদপুরের বাদশা আলমগীরি মসজিদ। বাদশা আলমগীর এর নামানুসারে ঐতিহ্যবাহী মসজিদটির নামকরণ করা হয়েছিল।

এই মসজিদটির গায়ে ফার্সি ভাষায় বাদশাহ আওরঙ্গজেবের নাম উল্লেখ রয়েছে। মোঘল শাসনামলের ১৬৫০ খ্রিস্টাব্দে এটি নির্মিত হয়। মোঘলরা কুমিল্লায় ভ্রমণে এসে এটি নির্মাণ করেন। এর পাশে শায়িত রয়েছেন চারজন আওলিয়া। ওই এলাকায় আওলিয়াদের উপস্থিতি অনেক বেশি ছিল বলে গ্রামের নাম হয় অলিপুর।

আলমগীরি মসজিদে ৫টি গম্বুজ রয়েছে। মসজিদের মূল স্থাপনা ৪টি পিলারের উপর দাঁড়ানো থাকলেও প্রতিটি গম্বুজে ৪টি করে পিলার রয়েছে। আর প্রতিটি দেয়ালের উচ্চতা প্রায় ১৬ ফুট।

১৯৯৮ সালে সরকারিভাবে একবার মসজিদটি সংস্কার করা হয়। তখন অনেক কারুকাজ নষ্ট হয়। মসজিদের গায়ে আনারস, ফুলসহ বিভিন্ন সৌন্দর্য খচিত কারুকাজ ছিলো। এখন একটু বৃষ্টি হলে দেয়াল ভিজে উঠে আর স্যাতস্যাতে হয়ে যায়। বিদ্যুৎ বিলসহ মসজিদের সব ব্যয়ভার স্থানীয় মুসল্লিদের করতে হয়।

অলিগণের মাজারের পাশে একটি দিঘী রয়েছে। এই দিঘীতে অলৌকিক ঘটনা ঘটে। এখানে গভীর রাতে অনেক উচ্চ স্বরে কোরআন পাঠ আর জিকিরের শব্দ ভেসে আসতো। ঠিক কারা কোথায় কোরআন পাঠ করতো তা সঠিকভাবে নির্ণয় করা যেতো না।

অবস্থান ও যাতায়াত

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার ৫নং সদর ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামের চৌধুরী বাড়ির সামনে অবস্থিত


Total Site Views: 1079859 | Online: 8