×
গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ভাওয়াল (রাজপ্রাসাদ) রাজবাড়ী ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান নন্দন পার্ক কালিয়াকৈর বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক বড়ইবাড়ি প্রত্নতাত্ত্বিক সাইট নাগরী টেলেন্টিনুর সাধু নিকোলাসের গীর্জা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক সুলতানপুর দরগাপাড়া শাহী মসজিদ বেলাই বিল বলধার জমিদার বাড়ী, বাড়ীয়া কাশিমপুর জমিদার বাড়ী গাজীপুর সদর শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ী সাটুরিয়া মখশবিল, কালিয়াকৈর জেলার দর্শনীয় রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট
☰ গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
নন্দন পার্ক

পরিচিতি

৩৩ একর জমির ওপর তৈরি পার্কটি ২০০৩ সালের ২ অক্টোবর দর্শনার্থীদের জন্য খোলা হয়। সঙ্গেই রয়েছে ‘ওয়াটার ওয়ার্ল্ড’। এটি চালু হয় ২০০৪ সালে। সবুজে ঘেরা মনোরম এই পার্কটি যুক্তরাজ্য থেকে প্রযুক্তি ও ডিজাইন নিয়ে ভারতের নিকো পার্ক রিসোর্ট ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের সহায়তায় তৈরি হয়। খাবারের জন্য রয়েছে চারটি ফুড কোর্ট। লকার ও ড্রেসিংরুমের সুবিধাও আছে। নন্দন পার্কটি বিভিন্ন ধরনের বিদেশি রাইডের সমন্বয়ে সাজানো। আধুনিক ও আকর্ষণীয় রাইডগুলোর তালিকায় রয়েছে ওয়াটার কোস্টার, কাটারপিলার, আইসল্যান্ড, প্যাডেল বোট, রিপলিং, মুন রেকার, রক ক্লাইমরিং, ওয়েব পুল, জিপ স্লাইড, কেবল কার, বাম্পার কার, নেট-এ-বল, সফট বল ক্যানন ইত্যাদি। ওয়াটার ওয়ার্ল্ডে রয়েছে আটটি রাইড। শিশুদের জন্য রয়েছে কেভ ট্রেন, ফ্লাই গো রাউন্ড, মিনি ক্রারোসলি ইত্যাদি রাইড। থিম, কিডস ও ওয়াটার ওয়ার্ল্ডে মোট ২৭টি রাইড রয়েছে। দেশের প্রথম ৫ডি সিনেমা থিয়েটার ও ২০১৭ সালে সর্বাধুনিক ৩৬০ ডিগ্রি ভার্চুয়াল মুভি থিয়েটার চালু হয় এখানে। মিনি প্যাকেজে প্রবেশ মূল্যসহ দুটি রাইড ব্যবহার ফি ২৯৫ টাকা। পার্কে প্রবেশ ও ওয়াটার ওয়ার্ল্ডের সব রাইড ব্যবহার ফি ৫২০ টাকা। এ ছাড়া রয়েছে বিভিন্ন প্যাকেজ মূল্য ও ছাড়ের ব্যবস্থা। রবি থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা, শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা এবং শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত পার্কটি খোলা থাকে।

অবস্থান ও যাতায়াত

বারইপাড়া, কালিয়াকৈর,গাজীপুর। সাভারের নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের পাশে চন্দ্রা ও বিকেএসপির মাঝামাঝি বারইপাড়া এলাকায় নন্দন পার্কের অবস্থান।


Total Site Views: 843851 | Online: 5