×
গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ভাওয়াল (রাজপ্রাসাদ) রাজবাড়ী ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান নন্দন পার্ক কালিয়াকৈর বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক বড়ইবাড়ি প্রত্নতাত্ত্বিক সাইট নাগরী টেলেন্টিনুর সাধু নিকোলাসের গীর্জা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক সুলতানপুর দরগাপাড়া শাহী মসজিদ বেলাই বিল বলধার জমিদার বাড়ী, বাড়ীয়া কাশিমপুর জমিদার বাড়ী গাজীপুর সদর শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ী সাটুরিয়া মখশবিল, কালিয়াকৈর জেলার দর্শনীয় রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট
☰ গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
বলধার জমিদার বাড়ী, বাড়ীয়া

পরিচিতি

বলধার জমিদার ছিলেন রাজ কিশোর রায় চৌধুরী। তার দত্তক পুত্র ছিলেন জমিদার হরেন্দ্র নারায়ণ রায় চৌধুরি। ধারণা করা হয়, হরেন্দ্র নারায়ণ রায় চৌধুরী এ জমিদার বাড়িটি নির্মাণ করেন। জমিদার বাড়িটি ছিল ৪০ কামরা বিশিষ্ট।এ এলাকায় যে এককালে জমিদারিত্ব চিল তার অস্তিত্ব প্রমাণ করে। কালী বাড়িটি ছয় কক্ষ বিশিষ্ট ‘ভি’ আকৃতির একতলা পাকা ভবন। সেগুলোও এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। সেখানে কেবল বলধার জমিদার বাড়ির ধংসাবশেষ ছড়িয়ে আছে। পূর্বপাশে প্রায় আড়াই শ’ ফুট লম্বা, দুই ফুট প্রশস্ত এবং কোথাও ২-৩ আবার কোথাও ৫-৭ ফুট উঁচু একটি দেওয়ালও রয়েছে ইতিহাস ও ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ আমাদের এই বাড়ীয়া ইউনিয়ন। প্রায় শত বছর পূর্বে এই বাড়ীয়া ইউনিয়ন ছিল জমিদার শাসন। যার নিদর্শন স্বরূপ বাড়ীয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে বলদা গ্রামের জমিদার বাড়ী।কালের গর্ভে জমিদার শাসন বিলিন হলেও, বিলিন হয়নি জমিদার বাড়ীর ভবন, জমিদার বাড়ীর বিচার কার্যালয়ের ভবন এবং ধর্মীয় ভবনের অবকাঠামো। জমিদার নরেন্দ্র রায় চৌধুরী ছিলেন জমিদার শাসনের এক উজ্জল দৃষ্টান্ত। জমিদার নরেন্দ্র রায় চৌধুরী দীর্ঘ দিন বাড়ীয়া ইউনিয়ন ছারাও গাজপুর জেলার ভিবিন্ন এলাকায় জমিদারিত্ব ছিল।

অবস্থান ও যাতায়াত

গাজীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে ৪ কি.মি পূর্বে অবস্থিত বলধা জমিধার বাড়ী।সি.এন.জি বা নিজস্ব পরিবহনের মাধ্যমে বলধা জমিদার বাড়ী সহজেই পেৌছানো যায়।


Total Site Views: 1022709 | Online: 6