×
গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ভাওয়াল (রাজপ্রাসাদ) রাজবাড়ী ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান নন্দন পার্ক কালিয়াকৈর বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক বড়ইবাড়ি প্রত্নতাত্ত্বিক সাইট নাগরী টেলেন্টিনুর সাধু নিকোলাসের গীর্জা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক সুলতানপুর দরগাপাড়া শাহী মসজিদ বেলাই বিল বলধার জমিদার বাড়ী, বাড়ীয়া কাশিমপুর জমিদার বাড়ী গাজীপুর সদর শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ী সাটুরিয়া মখশবিল, কালিয়াকৈর জেলার দর্শনীয় রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট
☰ গাজীপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
কালিয়াকৈর বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক

পরিচিতি

প্রযুক্তিভিত্তিক শিল্পায়ন, ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, তরুণ-তরুণীদের কর্মসংস্থান এবং হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ইন্ড্রাস্ট্রির উন্নয়ন ও বিকাশ ঘটাবে। এটি হবে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগের একটি সফল মাইলস্টোন। হাইটেক পার্ক দেশের অর্থনেতিক অগ্রগতিতেও বিরাট ভূমিকা রাখবে। যে কারণে এর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। কালিয়াকৈরে ২৩২ একর জমির এ পার্কটিকে পাঁচটি ব্লকে ভাগ করা হয়েছে। সামিট টেকনোপলিস ও ইনফিনিটিইনফোসিস দুই এবং পাঁচ নম্বর ব্লকের উন্নয়ন করবে। ব্লক দুই ও পাঁচে জমির পরিমাণ যথাক্রমে ৬২ ও ২৯ একর। চুক্তি অনুযায়ী সামিট টেকনোপলিস এ দুটি ব্লকে ২০৭ দশমিক ৫৯ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে। দুই নম্বর ব্লকে মাল্টি টেনেন্ট বিল্ডিং, কনভেনশন সেন্টার, হোটেল, কাস্টম ইনফ্রাস্টাকচার, ওয়্যার হাউজ এবং শিল্প এলাকার উন্নয়ন করা হবে। সম্প্রতি তিন নম্বর ব্লকের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ২৩২ একরের এ পার্কের ৯৮ দশমিক ৯ একর ভূমি আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী রোড এবং উন্মুক্ত প্রাঙ্গণ হিসেবে ব্যবহৃত হবে। বাকি ১৪ দশমিক ৫১ মিলিয়ন বর্গফুট এলাকা বাণিজ্যিক, আবাসিক ও অনান্য প্রয়োজনে ব্যবহৃত হবে।

অবস্থান ও যাতায়াত

গাজীপুরের কালিয়াকৈর


Total Site Views: 774260 | Online: 12