×
ঢাকা জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

লালবাগ কেল্লা আহসান মঞ্জিল বাহাদুর শাহ পার্ক রোজ গার্ডেন তারা মসজিদ হোসেনী দালান ঢাকেশ্বরী মন্দির আর্মেনীয় গির্জা বলধা গার্ডেন ওসমানি উদ্যান ও বিবি মরিয়ম কামান রমনা পার্ক শিশুপার্ক তিন নেতার মাজার কার্জন হল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঢাকা চিড়িয়াখানা বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ ফ্যান্টাসী কিংডম জাতীয় স্মৃতিসৌধ নভোথিয়েটার ধামরাইয়ের রথের মেলা সাকরাইন, পুরান ঢাকার পৌষসংক্রান্তি ও ঘুড়ি উৎসব মাওলা বক্স মেমরিয়াল ট্রাস্ট
☰ ঢাকা জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
মাওলা বক্স মেমরিয়াল ট্রাস্ট

পরিচিতি

এটি মূলত একটি দাতব্য চিকিৎসালয়, তবে মাওলা বক্স মেমরিয়াল ট্রাস্ট একাধারে এর লাইব্রেরী + ছোট হাসপাতাল + সংগ্রহশালা। ‘দাও আলো, দাও জীবন এমন স্লোগানে পুরান ঢাকার হাজারও মানুষের চোখে আলো ফিরিয়ে দিচ্ছে মাওলা বক্স সরদার দাতব্য চক্ষু হাসপাতাল। এইখানে আপনি যেমন ১০ টাকার বিনময়ে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারবেন, তেমনি এই গ্রন্থশালা থেকে আপনি পুরানো ঢাকার ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারবেন।

ভিতরে প্রবেশ করে রিসিপশন পেরিয়েই দেখবেন উপরে ওঠার সিড়ি এবং সিড়ির উপরের পুরোটায় গাছ দ্বারা আচ্চাদিত। সিড়ি দিয়ে উঠেই দেখবেন লাইব্রেরী এবং গ্রন্থশালা। এই গ্রন্থশালাতে রহেছে বহু পূরানো আমলের বই,শুধুমাত্র ঢাকার না অন্যান্য জেলার ইতিহাতসের বই ও আছে এখানে,রহেছে পড়ার জন্য সুন্দর পরিবেশ। শেল্ফের ভেতর আছে ঐতিহ্যবাহী কয়েকটি হুক্কা। আছে সর্দার পরিবারের থালা-বাটি-গ্গ্নাস-পিরিচ। দেয়ালে টানানো আছে প্রায় শতবর্ষী তিনটি জাপানি ঘড়ি।

আন্টাঘরের ময়দান বা বাহাদুর শাহ পার্কে যে আন্টা খেলা হতো সেই আন্টা সংগৃহীত আছে ঢাকা কেন্দ্রে। সাজানো আছে বন্দুকের কার্তুজ রাখার চামড়ার ব্যাগ, মোরগ-পোলাওয়ের ডিশ। আলমিরাতে শোভা পাচ্ছে সর্দার পরিবারের সোনা-রূপার জরি দিয়ে তৈরি জামা-কাপড়, বৈদ্যুতিক রেকর্ড প্লেয়ার, পুরনো টেলিফোন সেট। আছে নানা রকম কাগজপত্র ও আলোকচিত্র। রূপার পানদান ও গোলাপ জলদানি দেখে চোখ জুড়াবে দর্শনার্থীর। সবার জন্য উন্মুক্ত এ সুন্দর সংগ্রহশালাটি প্রতিদিন খোলা থাকে বিকেল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। শুক্রবার খোলা থাকে সকাল ৯টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, মাওলা বক্স সরদার নামের এক পঞ্চায়েত প্রধান পুরান ঢাকার ফরাশগঞ্জ এলাকার দানবীর ছিলেন। জীবদ্দশায় তিনি বহু মানুষের উপকার করেছেন।

১৯৮৭ সালের ১৫ জানুয়ারি মৃত্যুর আগে তিনি ছেলে ও দুই মেয়েকে মানবতার কল্যাণে তার সম্পত্তি ব্যবহারের কথা বলে যান। বাবার শেষ ইচ্ছা পূরণে মাওলা বক্সের ছেলে মোহাম্মদ আজিম বক্স পুরান ঢাকার ২৪, মনিমোহন দাস লেনে নির্মাণ করেন মাওলা বক্স মেমোরিয়াল ট্রাস্ট। ট্রাস্টের অধীনে মানবতার সেবায় চারটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। এর মধ্যে অন্যতম হলো দুস্থ ও অসহায় মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ প্রকল্প। এই উপরের তলায়, গ্রন্থশালা এবং লাইব্রেরী এর পাশে রহেছে সুন্দর সাজানো গোছানো একটি বাগান।(আজিজুল ইসলাম)

অবস্থান ও যাতায়াত

পুরান ঢাকার ফরাশগঞ্জ এলাকার ২৪, মনিমোহন দাস লেনে


Total Site Views: 786382 | Online: 14