×
মানিকগঞ্জ জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

বালিয়াটি প্রাসাদ, সাটুরিয়া প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র, কৈট্টা, সাটুরিয়া তেওতা জমিদার বাড়ী, শিবালয় তেওতা নবরত্ন মঠ, শিবালয় মানিকগঞ্জের মত্তের মঠ রামকৃষ্ণ মিশন সেবাশ্রম শিব সিদ্ধেশ্বরী মন্দির মানিকগঞ্জের শ্রী শ্রী আনন্দময়ী কালীবাড়ী মানিকগঞ্জের গৌরাঙ্গ মঠ নারায়ন সাধুর আশ্রম মাচাইন গ্রামের ঐতিহাসিক মাজার ও পুরোনো মসজিদ বাঠইমুড়ী মাজার ঈশ্বর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়, সাটুরিয়া নাহার গার্ডেন (পিকনিক স্পট), সাটুরিয়া শহীদ রফিক স্মৃতি যাদুঘর কবিরাজবাড়ী, মানিকগঞ্জ সদর
☰ মানিকগঞ্জ জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
মানিকগঞ্জের মত্তের মঠ

পরিচিতি

১৯৪৭ বর্তমান মানিকগঞ্জ সদরের দেড় মাইল পূর্বে মত্ত গ্রামটিতে এক সময় প্রতাপশালী জমিদারদের বসবাস ছিলো। তাদের মধ্যে রামকৃষ্ণ সেন এবং তার ছেলে প্রসন্ন কুমার সেনের নাম উল্লেখযোগ্য। মানিকগঞ্জের পুরাকীর্তির ইতিহাসে সদর উপজেলার মত্ত গ্রামের গুপ্ত পরিবারের অবদানের স্বীকৃতি পাওয়া যায়। এ পরিবারের আদি পুরুষ ছিলেন শিবানন্দ গুপ্ত। শিবানন্দ, প্রভাস গুপ্ত, শিশির গুপ্ত এবং প্রবোধ গুপ্ত পর্যন্ত মোট ২৩ পুরুষের সন্ধান জানা গেছে। গুপ্ত বংশের প্রতিষ্ঠাতা শিবানন্দ গুপ্ত নামকরা কবিরাজ ছিলেন। তিনি পাঠান সেনাপতি মীর মকিমের পারিবারিক চিকিৎসক ছিলেন। অনুমিত হয় যে, বাংলাদেশে পাঠান শসনামলে মত্তের গুপ্ত বংশীয় উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গ এ এলাকায় যেমন বিশেষ প্রাধান্য বিস্তার করেছিলো তেমনি ভেষজ চিকিৎসা শাস্ত্রে তাদের অগাধ বুৎপত্তি প্রবাদের মতো লোকমুখে আজও উচ্চারিত হয়।

অবস্থান ও যাতায়াত

মানিকগঞ্জ শহর থেকে রিক্সাযোগে/পদব্রজে যেতে হয়। দূরত্ব ৩ কিঃমিঃ । মানিকগঞ্জ শহর থেকে রিক্সাযোগে/পদব্রজে যেতে হয়। দূরত্ব ৩ কিঃমিঃ। রিক্সাভাড়া ২০/২৫ টাকা। রাত্রি যাপনের ব্যবস্থা নেই।


Total Site Views: 955056 | Online: 139