×
ঠাকুরগাঁও জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ফানসিটি বিনোদন ও শিশু পার্ক সনগাঁ শাহী মসজিদ মেদিনীসাগর জামে মসজিদ গেদুড়া মসজিদ গোরক্ষনাথ মন্দির কূপ ও শিলালিপি হরিণমারী শিব মন্দির হরিপুর রাজবাড়ি শিব মন্দির গোবিন্দনগর মন্দির জগদল বিরেন্দ্র নাথ চৌধুরীর পরিত্যাক্ত রাজবাড়ি রামরাই (রাণীসাগর) খুনিয়া দিঘী স্মৃতি সৌধ রাণীশংকৈল (রাজা টংকনাথের) জমিদার বাড়ী হরিপুর জমিদার বাড়ী রাণী সাগর গোরক্ষনাথ মন্দির রাজভিটা রাজা টংকনাথের রাজবাড়ি হরিপুর রাজবাড়ি জগদল রাজবাড়ি মহালবাড়ি মসজিদ জামালপুর জমিদারবাড়ি জামে মসজিদ শালবাড়ি মসজিদ ও ইমামবাড়া ঢোলরহাট মন্দির মালদুয়ার দুর্গ গড়গ্রাম দুর্গ বাংলা গড় গড় ভবানীপুর গড়খাঁড়ি দুর্গ কোরমখান গড় সাপটি বুরুজ পীর নাছিরউদ্দীন শাহ্ এর মাজার শরীফ। গোরকই মন্দির ছোট রাণীদিঘী শ্রী শ্রী গঙ্গা স্নান মন্দির রনশিয়া চন্দ্রা ও দানাজপুর বর্ডার বলাকা উদ্যান বা কুমিল্লা হাড়ি বিনোদন কেন্দ্র ও পিকনিক স্পট
☰ ঠাকুরগাঁও জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
মহালবাড়ি মসজিদ

পরিচিতি

ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল উপজেলা হতে উত্তরে মীরডাঙ্গী থেকে তিন কিলোমিটার পূর্বে মহেশপুর গ্রামে মহালবাড়ি মসজিদটি অবস্থিত। মসজিদে প্রাপ্ত শিলালিপি থেকে জানা যায় ১৫০৫ খ্রিস্টাব্দে সুলতান হোসেন শাহের আমলে এটি প্রতিষ্ঠিত। দিনাজপুর জাদুঘরে শিলালিপিটি সংরক্ষিত ছিল।মসজিদের পূর্বপাশে আছে একটি ছোট দিঘি। দিঘিটির উত্তর পাড়ের ঘাট উপর থেকে নিচ পর্যন্ত পাথরে বাঁধানো। মসজিদের দুশ মিটার পূর্বে জঙ্গলের মধ্যে দুটি কবর। কবর দুটি একসঙ্গে ইট দিয়ে বাঁধানো। কবরের উত্তর-পশ্চিমের কোণে নকশা করা একটি পাথরের থাম রয়েছে।


অবস্থান ও যাতায়াত

ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল উপজেলা হতে উত্তরে মীরডাঙ্গী থেকে তিন কিলোমিটার পূর্বে মহেশপুর গ্রামে অবস্থিত


Total Site Views: 996036 | Online: 1