×
রংপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ভিন্নজগত হাতী বান্ধা মাজার শরীফ তাজহাট জমিদার বাড়ি কেরামতিয়া মসজিদ ও মাজার চিকলির বিল টাউন হল শাশত বাংলা (মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর) রংপুর চিড়িয়াখানা মিঠাপুকুর তিন কাতারের মসজিদ ইটাকুমারী জমিদারবাড়ি রংপুর কারমাইকেল কলেজ দেওয়ানবাড়ির জমিদারবাড়ি বেগম রোকেয়া স্মৃতিকেন্দ্র ঝাড়বিশলা (কবি হেয়াত মামুদের সমাধি) আনন্দ নগর ড. ওয়াজেদ মিয়ার তোরণ
☰ রংপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
তাজহাট জমিদার বাড়ি

পরিচিতি

তাজহাট জমিদার মূলতঃ গোবিন্দ লালের পুত্র গোপাল লাল(জি.এল.রায়) এর সাথে সর্ম্পকযুক্ত যা স্থানীয়ভাবে তাজহাট জমিদার নামে পরিচিত।এ বংশের প্রকৃত প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন মান্নানলাল রায়।তিনি  সুদূর পাঞ্চাব হতে রংপুরের বিশিষ্ট সমৃদ্ধ স্থান মাহিগঞ্জে স্বর্ণ ব্যবসা করার জন্য এসেছিলেন।জমিদার বাড়ির সামনে রয়েছে সমসাময়িককালে খননকৃত বিশাল আকৃতির ৪টি পুকুর। বর্তমান তাজহাটে বাজার হতে উত্তর দিক দিয়ে প্রধান ফটক অতিক্রম কওে ক্রমান্বয়ে পশ্চিমে কয়েকশ’গজ পেরিয়ে জমিদার বাড়ির প্রধান প্রবে পথে আসা যায়।


অবস্থান ও যাতায়াত

তাজহাট রাজবাড়ীবাতাজহাট জমিদারবাড়ীবাংলাদেশের রংপুর শহরের অদূরেতাজহাটে অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক প্রাসাদ যা এখন একটিজাদুঘর হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। রংপুরের পর্যটকদের কাছে এটি একটি আকর্ষণীয় স্থান।রাজবাড়ীটি রংপুর শহর থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে ৩ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। ঢাকা থেকে রংপুর যাওয়ার জন্য সবচেয়ে ভালো পরিবহন হলো গ্রীন লাইন এবং টি আর ট্রাভেলস। এছাড়া এ রুটে আগমনী পরিবহন, এস আর, শ্যামলী, হানিফ, কেয়া ইত্যাদি পরিবহনের সাধারণ বাস চলাচল করে। ঢাকার কল্যাণপুর ও গাবতলী থেকে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে ছাড়ে এসব বাস। রংপুরে ভালো হোটেলের মধ্যে রয়েছে হোটেল শাহ আমানত (জাহাজ কোম্পানীর মোড়), হোটেল গোল্ডেন টাওয়ার (জাহাজ কোম্পানীর মোড়), হোটেল দি পার্ক (জাহাজ কোম্পানীর মোড়), হোটেল তিলোত্তমা (থানা রোড), হোটেল বিজয় (জেল রোড), আরডিআরএস (জেল রোড)।


Total Site Views: 846026 | Online: 12