×
রংপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান

ভিন্নজগত হাতী বান্ধা মাজার শরীফ তাজহাট জমিদার বাড়ি কেরামতিয়া মসজিদ ও মাজার চিকলির বিল টাউন হল শাশত বাংলা (মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর) রংপুর চিড়িয়াখানা মিঠাপুকুর তিন কাতারের মসজিদ ইটাকুমারী জমিদারবাড়ি রংপুর কারমাইকেল কলেজ দেওয়ানবাড়ির জমিদারবাড়ি বেগম রোকেয়া স্মৃতিকেন্দ্র ঝাড়বিশলা (কবি হেয়াত মামুদের সমাধি) আনন্দ নগর ড. ওয়াজেদ মিয়ার তোরণ
☰ রংপুর জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান
কেরামতিয়া মসজিদ ও মাজার

পরিচিতি

১৮০০০-১৮৭৩ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশে  ইসলামি সংস্কার আন্দোলনের সর্বাপেক্ষা  সফলকাম  ব্যক্তি  ও গৌরবান্বিত ব্যক্তি মাওলানা কেরামত আলী (রাঃ) জৈনপুওে ১২১৫ হিজরী ১৮ মহরম জন্মগ্রহণ করেন। সারা জীবন তিনি ইসলাম প্রচারের জন্য আত্মনিয়োগ করেন। রংপুরে তিনি ইসলাম প্রচারের জন্য আসেন এবং কেরামতিয়া মসজিদে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন।মসজিদটির তিনটি (উঁচু) গোলাকার গম্বুজ বিশিষ্ট। গম্বুজগুলো অষ্টকোণী ড্রামের উপর ভর করে নির্মিত। প্রতিটি গম্বুজের নিমণাংশে মারলন অলংকরণ রয়েছে এবং গম্বুজের মধ্যবর্তী স্থানে প্রস্ফুটিত পদ্মফুলের উপওে কলসমোটিফ ফিনিয়াল বা চূড়া স্থাপিত দেখা যায়।


অবস্থান ও যাতায়াত

রংপুরের জিরোপয়েন্টের কাছারি বাজার এলাকা থেকে মাত্র ১০০ গজ দক্ষিণে মুন্সিপাড়া। ঢাকার মহাখালী, কল্যাণপুর, মোহাম্মদপুর এবং গাবতলী থেকে রংপুরগামী বেশ কয়েকটি বিলাস বহুল এসি ও নন এসি বাস রয়েছে। এসব বাসের ভাড়া ৫শ’ টাকা থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে। এছাড়া কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে রংপুর এক্সপ্রেস সোমবার ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৯টায় রংপুরের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। রংপুরে ট্রেন ভাড়া ২শ’ থেকে ৭শ’ টাকা। ঢাকা থেকে রংপুর আসতে সময় লাগবে সাড়ে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা। ট্রেনে লাগবে ৮ থেকে ৯ ঘণ্টা। রংপুর থেকে সরাসরি ভিন্নজগতে যাওয়ার জন্য গাড়ির ব্যবস্থা রয়েছে। এক্ষেত্রে প্রাইভেটকারের ভাড়া ৪শ’ থেকে ৫শ’ টাকা এবং মাইক্রোবাসের ভাড়া ৮শ’ থেকে ১ হাজার টাকা।


Total Site Views: 848259 | Online: 5